আজকের সর্বশেষ

গাজি মার্কেট তরুণ প্রবাসী ঐক্য পরিষদের আয়োজনে প্রথমবারের মতো মেধাবৃত্তি পরীক্ষা-২০২৩ সম্পন্ন

চট্টগ্রামে দৈনিক ভোরের দর্পণের ২২ বছর পূর্তি অনুষ্ঠান

সাংবাদিকতায় বিশেষ অবদান রাখায় সম্মাননা পদক পেলেন রিয়াদুল মামুন সোহাগ

দৈনিক ভোরের দর্পণ পত্রিকার ২৩ বছর পূর্তিতে জাতীয় সাংবাদিক সংস্থা চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিটির পক্ষ থেকে শুভেচ্ছা

শত বয়সী মাওলানা রফিক উল্লাহ'র ইন্তেকাল

বার্ষিক শুকরানা মাহফিল, পুরস্কার বিতরণ ও গুণীজন সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত

বেসরকারি পর্যায়ে করোনা রোগীদের চিকিৎসা সেবায় অসামান্য অবদানের জন্য সমাজসেবা অধিদপ্তর কতৃক চট্টগ্রাম মা ও শিশু হাসপাতালকে সম্মাননা স্মারক প্রদান......

রোটারী ক্লাব অব চিটাগাং সাগরিকার বার্ষিক সভা সম্পন্ন


বাকবিশিস এর কৃতী শিক্ষক সংবর্ধনায় অভিমত শিক্ষকেরা সমাজের বিভিন্ন ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখে চলেছেন





শেয়ার

বাংলাদেশ কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয় সমিতি (বাকবিশিস), চট্টগ্রাম জেলা, বিভাগ ও মহানগর কমিটির উদ্যোগে কৃতী শিক্ষক সংবর্ধনা গত ২২ অক্টোবর, শনিবার, বিকাল সাড়ে চারটায় নগরীর ফুলকি'র এ. কে. খান মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে শিক্ষাক্ষেত্রে বিশেষ অবদান ও শিক্ষক আন্দোলনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকাগ্রহণকারী কৃতী শিক্ষকদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য কয়েকজন গুণী শিক্ষক ও শিক্ষক নেতাকে সংবর্ধনা দেওয়া হয়। সংবর্ধিত শিক্ষকগণ হলেন অধ্যাপক ড. মাহবুবুল হক, অধ্যাপক ড. গণেশ চন্দ্র রায়, অধ্যাপক উত্তম চৌধুরী, অধ্যক্ষ মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর, অধ্যাপক কানাই দাশ এবং অধ্যক্ষ আবুল মনসুর মো. হাবিব। বাকবিশিস চট্টগ্রাম জেলা কমিটির সভাপতি অধ্যক্ষ মোহাম্মদ নুরুল আফছারের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক রঞ্জন বণিক-এর সঞ্চালনায় সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন বাকবিশিস'র কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি অধ্যাপক ড. নুর মোহাম্মদ তালুকদার। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাকবিশিস'র কেন্দ্রীয় কমিটির উপদেষ্টা অধ্যাপক রণজিৎ কুমার দে, শিক্ষা সংগঠক ও সাংবাদিক আবুল মোমেন, বাকবিশিস'র কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম সম্পাদক অধ্যাপক মিজানুর রহমান মজুমদার এবং দৈনিক আজাদীর সহযোগী সম্পাদক, শিশু সাহিত্যিক, সংগঠক ও সাংবাদিক রাশেদ রউফ। সভায় বক্তাগণ বলেন, শিক্ষক কখনো অবসরে যান না। সমাজে শিক্ষকের স্থান সবার উপরে। শিক্ষকদের শুধু পেশাগত জীবনে সীমাবদ্ধ না থেকে সমাজের সর্বস্তরের কল্যাণে সচেতনতামূলক কাজ করতে হয়। আমাদের দেশে শিক্ষকতায় বেতনবৈষম্যের কারণে গুণগত শিক্ষা নিশ্চিত করা যাচ্ছে না। এবং শিক্ষকদের উপর অসংখ্য কর্তৃপক্ষের খবরদারির কারণে শিক্ষকেরা যথাযথ পাঠদান করতে পারছে না। যার ফলে বায়ান্ন শতাংশ শিক্ষার্থী শ্রেণিকক্ষে না গিয়ে কোচিং সেন্টারে দৌঁড়াচ্ছে। আগামীদিনের যে চ্যালেঞ্জ তা শিক্ষকদের মোকাবেলা করতে হবে। তারজন্য এখন থেকে প্রস্তুতিগ্রহণ করতে হবে। বক্তাগণ আরো বলেন, সংবর্ধিত শিক্ষকেরা শুধু স্বীয় পেশায় নয়, সমাজের অন্যান্য ক্ষেত্রেও তাঁদের ব্যাপক অবদান রেখে চলেছেন। সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন অধ্যাপক তড়িৎ ভট্টাচার্য, অধ্যক্ষ আলম আকতার, অধ্যক্ষ শিমুল বড়ুয়া, উপাধ্যক্ষ বশির উদ্দিন কনক, অধ্যাপক অজিত দাশ, অধ্যাপক অসীম চক্রবর্তী, উপাধ্যক্ষ দেবপ্রিয় বড়ুয়া, অধ্যক্ষ সুধীর চক্রবর্তী, অধ্যক্ষ মো. জাহাঙ্গীর আলম, অধ্যক্ষ রুনু মজুমদার, উপাধ্যক্ষ মো. নাসির উদ্দিন, অধ্যক্ষ জনার্দন বণিক, অধ্যাপক বিশ্বজিত চক্রবর্তী, অধ্যাপক সাইফুদ্দিন মো. মোরশেদ, অধ্যাপক মো. শহীদুল্লাহ, অধ্যাপিকা ঋতি নন্দী, অধ্যাপক মানিক চন্দ্র বড়ুয়া, অধ্যাপিকা জুলায়খা আকতার, অধ্যাপক ত্রিদিব রায়, অধ্যাপক মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর, অধ্যাপিকা রুবি বিশ্বাস, অধ্যাপক রঞ্জন দাশ, অধ্যাপিকা হামিদা বেগম, অধ্যাপক মানিক চন্দ্র নাথ, অধ্যাপক মো. মেহেদী হাসান, অধ্যাপক বিপ্লব বড়ুয়া, অধ্যাপক নজরুল ইসলাম, অধ্যাপক দিলীপ দাশ, অধ্যাপক মোহাম্মদ হোসেন, অধ্যাপক মানিক দে শ্রাবণ, অধ্যাপিকা ছামিরা কুমকুম, অধ্যাপক শিলাব্রত দাশ, অধ্যাপক চিন্ময় মিত্র, অধ্যাপিকা ইসরাত জাহান চৌধুরী, অধ্যাপক দীপংকর নাথ প্রমুখ।

সারাদেশ


শেয়ার