গাড়ির ধাক্কায় প্রাণ গেলো সাংবাদিকের,বিএমএসএফের পক্ষ থেকে সুস্ঠু তদন্তের দাবি





শেয়ার

দেশবিদেশ২৪ডেস্কঃ নাটোরের নলডাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী অফিসারের বউয়ের গাড়ির ধাক্কায় সিংড়ার সাংবাদিক সোহেল আহমেদ জীবন মারা গেছেন।   সরকারী গাড়িটি নলডাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী অফিসার সুখময় রায়ের স্ত্রী মানসি দত্ত মৌমিতা জোর করে ব্যবহার করতেন। আর সেই জীপ গাড়িতে করে তিনি ভ্রমনে যাবার পথে আনাড়ি ড্রাইভারের ধাক্কায় মোটর সাইকেলে থাকা সাংবাদিক সোহেল আহমেদ জীবন গুরুতর আহত হন। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল (রামেক) নিয়ে যাওয়ার পথে দুপুর ১ টার দিকে প্রাণ হারান সাংবাদিক জীবন।   বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম ও সিংড়া প্রেসক্লাবের সদস্য ছিলেন। তিনি আজ সোমবার ( ৯ মে) সকাল সাড়ে ১০ টায় পেশাগত কাজে যাওয়ার পথে সিংড়ার নিংঙ্গইন তেল পাম্প সংলগ্ন ৯০ স্পিডে থাকা জীপ গাড়ির সাথে দূর্ঘটনার শিকার হলে মোটর সাইকেলটি ধুমড়ে মুচড়ে জীপের নীচে চলে যায়।   সোহেলের ভাই জানিয়েছেন ঘটনার পর ঐ ইউএনও বারবার আহত সাংবাদিককে দেখতে যাবার কথা বলেও সেখানে পৌঁছোননি। দূঘর্ঘটনার শিকার মোটর সাইকেলটি দুমড়ে মুচড়ে জীপের ভেতরে ঢুকে গেছে   সোহেল আহমেদ জীবন বিভিন্ন সামাজিক স্বেচ্ছাসেবামুলক সংগঠনের সাথে জড়িত ছিলেন। তাঁর এই অকাল মৃত্যতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।   বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরামের পক্ষ থেকে গণমাধ্যমে পাঠানো বিবৃতিতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান আহমেদ আবু জাফর, কেন্দ্রীয় সভাপতি সোহেল আহমেদ ও সম্পাদক শিবলী সাদিক খান।   এলাকাবাসীর অভিযোগ কোন প্রটোকলে সরকারী গাড়ী ব্যবহার করতেন ইউএনওর স্ত্রী? এদিকে বিএমএসএফের পক্ষ থেকে সুস্ঠু তদন্তের দাবি করে দৃষ্টান্তমূলক বিচার চাওয়া হয়েছে।

সারাদেশ


শেয়ার