অচেনা নাম্বারে প্রেম অত:পর গণধর্ষণ পরবর্তীতে ৩ ধর্ষক আটক





শেয়ার

নয়ন চক্রবর্তী,বান্দরবান প্রতিনিধিঃ বান্দরবানে ২১ বছর বয়সী  যুবতীকে গণধর্ষণের অভিযোগে ৩ যুবক'কে   আটক করেছে বান্দরবান সদর থানা পুলিশ।

 

রবিবার (৩ জানুয়ারি) বান্দরবান সদর থানাধীন ৪ং সুয়ালক উপি'র ৮নং ওয়ার্ড  মেনপুং ম্রো'র খামারের পার্শ্বে এ গণধর্ষণের  ঘটনা ঘটে। 

 

আটককৃতরা হলেন মোঃ রাসেদ(২৩) পিতাঃ নুরুল আলম, মোঃ কায়সার (২২) পিতাঃ মৃত আব্দুল সালাম,মোঃ ওমর ফারুক(১৮)  পিতাঃ হাসান আলী,  উভয়ই জংগল পদুয়া, লোহাগড়া, চট্টগ্রামের বাসিন্দা।

 

সুত্রে জানা যায়, ধর্ষিতার সাথে মোঃ রাসেদের রং নাম্বারে পরিচয় হয়ে গড়ায় প্রেমের সম্পর্কে। কাজী অফিসে গিয়ে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ঘর থেকে এনে নিয়ে যায় বান্দরবান সদর থানাধীন ৪ং সুয়ালক উপি'র ৮নং ওয়ার্ড  মেনপুং ম্রো'র খামারের পার্শ্বে। সেখানে উক্ত তিন জন ইচ্ছার অমতে পালাক্রমে ধর্ষণ করে এবং মোঃ হানিফ(২৪) পাহারা দিয়ে সহযোগিতা করে। এসময় মোঃ হানিফ(২৪) পালিয়ে গেলেও ধর্ষিতার চিৎকার  শুনে স্থানীয়রা সেখান থেকে ধর্ষিতাকে উদ্ধার করে রাসেদ(২৩),মোঃ কায়সার,(১৮),ওমর ফারুক(১৮) নামে ৩ যুবক'কে আটক করে ভাগ্যকুল ক্লাবে নিয়ে যায় এবং স্থানীয় মেম্বারের সহায়তায় বান্দরবান সদর থানায় হস্তান্তর করেন।

 

বান্দরবান সদর থানা পুলিশ উপ-পরিদর্শক আজিজ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন ধর্ষিতার অভিযোগের প্রেক্ষিতে মোঃ রাসেদ(২৩) পিতাঃ নুরুল আলম, মোঃ কায়সার (২২) পিতাঃ মৃত আব্দুল সালাম,মোঃ ওমর ফারুক(১৮)  পিতাঃ হাসান আলী, মোঃ হানিফ(২৪)  উভয়ের বিরুদ্ধে ২০০০ সালের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন সংশোধনী ২০০৩ এর ৯(৩)/৩০ ধারায় ইচ্ছার বিরুদ্ধে গনধর্ষন ও ধর্ষণে সহায়তার অপরাধে মামলা দায়ের করা হয় এবং মোঃ রাসেদ(২৩) পিতাঃ নুরুল আলম, মোঃ কায়সার (২২) পিতাঃ মৃত আব্দুল সালাম,মোঃ ওমর ফারুক(১৮)  পিতাঃ হাসান আলী 'কে ৪ জানুয়ারী  মহামান্য আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

 

সারাদেশ


শেয়ার