রাজাপুর থানা মুক্ত দিবসে প্রেস ক্লাব কর্তৃক আলোচনা সভা





শেয়ার

কঞ্জন কান্তি চত্রুবর্তী,ঝালকাঠি জেলা প্রতিনিধি:  ঝালকাঠি জেলাধীন রাজাপুর থানা মুক্ত দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে৷ সোমবার (২৩ নভেম্বর) সন্ধ্যায় রাজাপুর প্রেসক্লাব হলরুমে প্রেসক্লাব'র আয়োজনে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়৷ প্রেসক্লাব সভাপতি মোঃ মনিরুজ্জামান খানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা এ্যাড. এএইচএম খায়রুল আলম সরফরাজ ৷ প্রেসক্লাবের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবু সায়েম আকনের সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সাবেক কমান্ডার শাহ আলম নান্নু, বীর মুক্তিযোদ্ধা নুর হোসেন, প্রেসক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা ও সাবেক সভাপতি আব্দুল বারেক ফরাজি সহ প্রমূখ৷ আলোচনা সভায় প্রেসক্লাবের সদস্যবৃন্দ সহ গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন ৷ 

উল্লেখ্য ১৯৭১ সালের এই দিনে বরিশাল অঞ্চলের মধ্যে রাজাপুর থানা সর্বপ্রথম পাক হানাদার মুক্ত হয়। বৃহত্তর বরিশালের রাজাপুরের আকাশে উড়ে প্রথম স্বাধীন বাংলাদেশের পতাকা। ১৯৭১ সালের ১৪ নভেম্বরের পর সারাদেশের ন্যায় রাজাপুরে মুক্তিযুদ্ধ আরো তীব্র হয়। দেশীয় দোসরদের সহায়তায় পাক বাহিনী সাধারণ নিরীহ জনগণকে ধরে এনে বধ্যভূমি সংলগ্ন নদীর ঘাটে বেঁধে গুলি করে লাশ নদীতে ফেলে দেয়। লাশের গন্ধে ভারী হয়ে ওঠে আকাশ বাতাস। ১৯৭১ সালের এই দিনে এক রক্তক্ষয়ী সম্মুখ যুদ্ধের মাধ্যমে ঝালকাঠির রাজাপুর থানাকে হানাদার বাহিনী ও তাদের দোসরমুক্ত করেছিল বীর মুক্তিযোদ্ধারা।

সারাদেশ


শেয়ার