ডাবল চমক পরীমনির





শেয়ার

হঠাৎ করেই ফের সবাইকে চমকে দিলেন ঢাকাই সিনেমার আলোচিত নায়িকা পরীমনি। এবার তিনি দিয়েছেন মা হওয়ার খবর। গতকাল নিজেই  সন্তানসম্ভবা হওয়ার শুভ সংবাদটি জানান তিনি। তার সন্তানের পিতা অভিনেতা শরিফুল রাজ। ১৭ই অক্টোবর পরীমনি ও শরিফুল রাজের বিয়ে হয়েছে। যদিও বিষয়টি আগে তারা জানাননি। মা হওয়ার সংবাদের সঙ্গেই বিয়ের খবরটি প্রকাশ পায়। বিষয়টি নিয়ে তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় পরীমনি বলেন, আজই (গতকাল) হাসপাতাল থেকে ফিরলাম।

 

খবরটা শুনে রাজ আমাকে জড়িয়ে ধরে কান্না শুরু করে দিলো। আমাদের সন্তানের হার্ট বিট শুনেছি আমরা। এর চেয়ে সুখের অনুভূতি আর কি হতে পারে! মনে হচ্ছে আমি পৃথিবীর সব থেকে পাওয়ারফুল নারী। আমার সত্যি সত্যি ডানা মেলে উড়তে ইচ্ছে করছে। এ অনুভূতি প্রকাশ করা যায় না। আমার জীবনের সেরা উপহারটি সৃষ্টিকর্তার কাছ থেকে পেতে যাচ্ছি। আমার ভক্ত, বন্ধু ও স্বজনদের বলবো আমাদের জন্য দোয়া করতে। সব সময় আমার পাশে থাকতে। পরী আরও বলেন, ডাক্তার আমাকে এখন সাবধানে চলাফেরা করতে বলেছেন। শুটিং থেকেও আমি এখন নিজেকে দূরে রাখছি। আগামী দেড় বছর কোনো শুটিং করবো না। একদম ছুটি, আমার দেড় বছরের ছুটি। বাচ্চাকে সুন্দরভাবে পৃথিবীতে আনতে চাই। পরী জানান, কন্যা সন্তান হলে তার নাম রাখবেন রানী আর পুত্র সন্তান হলে রাজ্য। এদিকে শরিফুল রাজ মানবজমিনকে বলেন, ১৭ই অক্টোবর পরীকে বিয়ে করেছি। এখন সে আমার সন্তানের মা হচ্ছে। এ খবর শোনার পর নাচতে ইচ্ছে করছে খুশিতে। আর পরী মা হওয়ার পর বড় করে বিয়ের আয়োজন করার ইচ্ছা আছে। এই অভিনেতা আরও জানিয়েছেন, দেড় বছর পরী কোনো কাজ করবে না। কারণ সে আমার সন্তানের মা হচ্ছে। তার আগে গতকাল দুপুরে রাজের ফেসবুক আইডি থেকে পরীকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন রাজ নিজেই। নিজেকেও অভিনন্দন জানিয়েছেন এ নায়ক। শরীফুল রাজ ও পরী সমপ্রতি জুটি হয়ে কাজ করেছেন গিয়াস উদ্দিন সেলিমের ‘গুণিন’ চলচ্চিত্রে। এই ছবিতে কাজ করতে গিয়েই প্রেমের সম্পর্ক তৈরি হয় তাদের। বর্তমানে পরীর হাতে রয়েছে রাশিদ পলাশের ‘প্রীতিলতা’, চয়নিকা চৌধুরীর ‘কাগজের ফুল’, অরণ্য আনোয়ারের ‘মা’ চলচ্চিত্রগুলো। এ বছরই মুক্তি পাওয়ার কথা রয়েছে পরী অভিনীত ‘মুখোশ’, ‘অ্যাডভেঞ্চার অব সুন্দরবন’ ছবি দুটি।

২০১৫ সালে ‘ভালোবাসা সীমাহীন’ চলচ্চিত্রের মাধ্যমে বড় পর্দায় অভিষেক হয় পরীমনির। ২০১৬ সালের ১৪ই ফেব্রুয়ারি সাংবাদিক তামিম হাসানের সঙ্গে পরীমনির প্রেমের গুঞ্জন শোনা যায়। ২০১৯ সালের ১৪ই ফেব্রুয়ারি বেশ ঢাকঢোল পিটিয়ে তাদের বাগদান সম্পন্ন হয়। পরবর্তীতে অবশ্য এ সম্পর্ক আর এগোয়নি। এদিকে করোনার মাঝে পরীমনিকে ৩ টাকার কাবিনে বিয়ে করেন নির্মাতা কামরুজ্জামান রনি। তবে সেই বিয়েও বেশিদিন টেকেনি। ঢাকা বোট ক্লাবে ধর্ষণ ও হত্যাচেষ্টার অভিযোগকে কেন্দ্র করে গত বছর বার বার শিরোনামে আসেন পরীমনি। এ ঘটনায় ওই বছরের ১৪ই জুন ব্যবসায়ী নাসির উদ্দিন মাহমুদ ও তুহিন সিদ্দিকী অমির নাম উল্লেখ করে এবং চারজনকে অজ্ঞাত আসামি করে সাভার থানায় মামলা করেন পরীমনি। এ মামলায় নাসির ও অমিকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। এর দুই মাস যেতে না যেতেই মাদক মামলায় খোদ পরীমনিকেই আটক করে র‌্যাব। বর্তমানে জামিনে আছেন ঢাকাই ছবির এই নায়িকা।

বিনোদন


শেয়ার