লকডাউনের তৃতীয় দিনে রাজধানীতে বেড়েছে মানুষের চলাচল, বিধি ভঙ্গের কারণে দ্বিতীয় দিনে গ্রেপ্তার ৩৮৩ জন৷





শেয়ার

[0:02 pm, 25/07/2021] Mamunur Rashid Liton: লকডাউনের তৃতীয় দিনে রাজধানীতে বেড়েছে মানুষের চলাচল। রোববার সকাল থেকেই রাজধানীর প্রধান সড়ক গুলোতে গণপরিবহন না চললেও ব্যক্তিগত গাড়ি অবাধে চলতে দেখা যায়।

রাজধানীর যাত্রাবাড়ী, ফার্মগেট ও মিরপুর এলাকার সড়ক গুলো ছিল রিকশার দখলে। প্রাইভেটকারের চলাচল ছিল গতকালের তুলনায় বেশি। বিভিন্ন এলাকায় অলি-গলিতে বেড়েছে মানুষের চলাচল। রেস্টুরেন্ট গুলোতেও খাবার পরিবেশন করতে দেখা গেছে। স্বাস্থ্যবিধি মানার প্রবণতাও ছিল গত দুই দিনের তুলনায় কম।

রোববার সকাল থেকেই প্রধান সড়ক গুলোর চেকপোস্টে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের কঠোর নজরদারি লক্ষ্য করা যায়। তবে ঢাকার প্রবেশ পথগুলোতে ছিলো মানুষের চাপ।

রাজধানীর বিভিন্ন প্রবেশ পথে সকাল থেকে দেখা যায় অফিসগামীদের ভিড়। গণপরিবহন না থাকায় বেশির ভাগ মানুষকে পায়ে হেঁটেই গন্তব্যের উদ্দেশ্যে রওনা দিতে দেখা যায়। 

প্রায় প্রতিটি গাড়ি থামিয়ে জানতে চাওয়া হয় চলাচলের সুনির্দিষ্ট কারণ। তবে লকডাউনের প্রথম ও দ্বিতীয় দিনের তুলনায় রোববার সকালে সড়কে গাড়ি ও মানুষের চলাচল ছিলো বেশি।

এর আগে রাজধানীতে কঠোর লকডাউনের দ্বিতীয় দিনে বিধি ভঙ্গের কারণে গ্রেপ্তার করা হয় ৩৮৩ জন। বিনা প্রয়োজনে বাসা থেকে বের হওয়ার অভিযোগে তাঁদের গ্রেপ্তার করা হয়। এছাড়া ১৩৭ জনকে জরিমানা করা হয় প্রায় ৯৫ হাজার টাকা এবং প্রায় ১১ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে ৪৪১টি গাড়িকে।

ঈদুল আজহার কারণে ১৫ থেকে ২২ জুলাই পর্যন্ত কঠোর বিধিনিষেধ শিথিল করা হয়েছিল। পরে ২৩ জুলাই থেকে ৫ আগস্ট পর্যন্ত ‘কঠোরতম ’ জারি করে লকডাউনের ঘোষণা দেই সরকার। আজ এই বিধিনিষেধের তৃতীয় দিন চলছে।

জাতীয়


শেয়ার