আজকের সর্বশেষ

সভাপতি- খায়রুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক- কেফায়েতুল্লাহ কায়সার। জাতীয় সাংবাদিক সংস্থা চট্টগ্রাম বিভাগের নতুন কমিটি

জাতীয় সাংবাদিক সংস্থার কেন্দ্রীয় কমিটির ভাইস চেয়ারম্যান হলেন চট্টগ্রামের সাংবাদিক খায়রুল ইসলাম, ও যুগ্ম মহাসচিব কেফায়েতুল্লাহ কায়সার

চ্যানেল কৃষি সন্মাননা পেলেন লেখক ও সংগঠক শামছুল আরেফিন শাকিল

চ্যানেল কৃষি সন্মাননা পেলেন নির্মাতা ও অভিনেতা মোশারফ ভূঁইয়া পলাশ

আইএফআইসি ব্যাংক শিবের হাট উপশাখা উদ্বোধন

জাপান বুঝিয়ে দিলো ফুটবল শুধু পশ্চিমের নয়

বাকবিশিস'র ১০ জাতীয় সম্মেলন সম্পন্ন : ড. নুর মোহাম্মদ তালুকদার সভাপতি, অধ্যক্ষ মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত

অধ্যক্ষ শিমুল বড়ুয়া বাকবিশিস'র কেন্দ্রীয় প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক নির্বাচিত


চট্টগ্রাম নগরীতে ইয়াবা সরবরাহ করতে এসে ২ জন ধরা





শেয়ার

চট্টগ্রাম প্রতিনিধিঃ ডিএনসি চট্টগ্রাম গোয়েন্দা'র অভিযানে চট্টগ্রাম মহানগরে পাচারকালে তিন হাজার নয়শত পিস ইয়াবাসহ ২ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

 

মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর বিভাগীয় গোয়েন্দা কার্যালয় চট্টগ্রামের উপ-পরিচালক হুমায়ুন কবির খন্দকার জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পরিদর্শক  এস এম আলম খানের নেতৃত্বে ডিএনসি চট্টগ্রাম গোয়েন্দার একটি বিশেষ টিম সর্বমোট তিন হাজার নয়শত পিস মিথাইল এ্যামফিটামিন মিশ্রিত মাদকদ্রব্য ইয়াবাসহ  ২ জন মাদক পাচারকারীকে হাতেনাতে গ্রেফতার করেছে।

 

আসামীরা হলেন- আব্দুর রহিম (২৮) , পিতাঃ মৃত নুরুল ইসলাম, সাং- হোল্ডিং নং ১২৬১,নয়াপাড়া,মধ্য ওয়ার্ড নং-৫,হোয়াইক্যং ইউ.পি,  থানাঃটেকনাফ, জেলাঃ কক্সবাজার।

অপর আসামী মো:মতিউর রহমান (৪২), পিতা: আফতাব উদ্দিন, স্থায়ী সাং-কেন্দুয়া,  থানা: তারাকান্দা, জেলা: ময়মনসিংহ, বর্তমানে - উল্লাপাড়া, (কাশেম সদাগরের বাড়ী),থানা: চন্দনাইশ জেলা-চট্টগ্রাম।

 

তিনি আরো জানান, ডিএনসি গোয়েন্দা টিমের সদস্যরা বুধবার বেলা দশটা পনের মিনিটের সময় মহানগরের বাকলিয়া থানাধীন শাহ আমানত সংযোগ সড়কের ফুলকলি ফুডস ফ্যাক্টরীর বিপরীতে রাস্তা  হতে আসামী আব্দুর রহিম (২৮) কে ২৯০০ (দুই হাজার নয়শত) পিস এবং একই টিম  বেলা ১১ টা পনের মিনিটের সময় চকবাজার থানাধীন মেহেদীবাগ ম্যাক্স হাসপাতালের সামনে হতে অপর আসামী মো: মতিউর রহমান (৪২) কে ১০০০ পিস মিথাইল এ্যামফিটামিন মিশ্রিত ইয়াবা সহ সর্বমোট  ৩,৯০০ (তিন হাজার নয়শত ) পিস ইয়াবাসহ  সহকারে হাতেনাতে গ্রেফতার করে। 

 

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আসামীগণ ইয়াবাগুলো কক্সবাজারের টেকনাফ সীমান্ত হতে ইয়াবা কৌশলে সংগ্রহ করে চট্টগ্রাম শহরে ইয়াবাগুলো সরবরাহ দেয়ার জন্য আসছিল তাছাড়া আসামীগণ পরস্পরের সাহায্য ও সহযোগীতায় ইয়াবা সরবরাহ ও বিক্রয় করে বলে স্বীকারোক্তি দেয়। চট্টগ্রাম ডিএনসি গোয়েন্দা কার্যালয়ের পরিদর্শক এস এম আলম খান এবং উপ-পরিদর্শক মোহাম্মদ টিপু সুলতান বাদী হয়ে আসামীদের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে যথাক্রমে চট্টগ্রাম মহানগরের বাকলিয়া ও চকবাজার থানায় পৃথক ২টি নিয়মিত মামলা দায়ের করে। গ্রেফতারকৃত আসামীদেরকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

চট্টগ্রাম


শেয়ার



আরও পড়ুন