শেখ হাসিনার গতিশীল নেতৃত্বে একযুগে স্বল্পোন্নত থেকে মধ্যম আয়ের দেশ বাংলাদেশ: রেজাউল করিম চৌধুরী





শেয়ার

স্বাধীনতার ৫০ বছর পূর্তি উপলক্ষে গোসাইলডাঙ্গা এলাকায় শীর্তাতদের মাঝে কম্বল বিতরণ ও আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত চসিক মেয়র পদপ্রার্থী এম. রেজাউল করিম চৌধুরী বলেন, ‘৭৫এর ১৫ আগষ্ট জাতির জনককে হত্যার মাধ্যমে ষড়যন্ত্রকারীরা দেশকে উল্টোরথে তুলে দিয়েছিল। যুদ্ধ বিধ্বস্ত অবকাঠামোর পূনর্গঠনের মাধ্যমে চৌকস পরিকল্পনায় বঙ্গবন্ধু মাত্র সাড়ে তিন বছরে দেশকে অগ্রগতির রথে চড়িয়েছিলেন, বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যা ও তৎপরবর্তী কলঙ্কিত এ অধ্যায়ে দেশ পিছিয়ে না গেলে বাংলাদেশ হতে পারত এখন উচ্চ আয়ের দেশ। 

 

আল্লাহর দরবারে অশেষ শুকরিয়া, বিদেশে অবস্থানের কারনে বঙ্গবন্ধুকন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা সেদিন বেঁচে গিয়েছিলেন। বঙ্গবন্ধু হত্যার বেনিফিসিয়ারী স্বৈরাচারী গোষ্ঠীর হাত থেকে দেশের গনতন্ত্র ফিরিয়ে এনে দীর্ঘ লড়াই সংগ্রাম শেষে জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতে রাষ্ট্র পরিচালনার দায়িত্ব আসায় ১০ বছরেরও কম সময়ে আমরা হাতপাতা নিম্ম আয়ের দেশ হতে মধ্যম আয়ের দেশে পরিনত হয়েছি। শেখ হাসিনার সরকারের ধারাবাহিকতা অব্যাহত থাকলে আগামী অচিরেই আমরা উচ্চ মধ্যম আয়ের দেশে পরিনত হতে পারব এবং ভিশন ২০৪১ বাস্তবায়নের মাধ্যমে উচ্চ আয়ের দেশে পরিনত হব।

 

এ জন্য দেশের সমস্ত ক্ষেত্রে স্থানীয় পর্যায়েও আওয়ামী লীগের প্রতিনিধিদের নির্বাচিত করতে হবে। কারন, আওয়ামী লীগ দেশের মানুষকে স্বাধীনতা দিয়েছে, গনতন্ত্র দিয়েছে, উন্নয়ন দিয়েছে। এটা প্রমানিত সত্য, একমাত্র আওয়ামী লীগই পারে জনগনকে দেয়া কথা রাখতে। আওয়ামী লীগই পারবে বাংলাদেশকে একটি উন্নত রাষ্ট্র হিসেবে গড়ে তুলতে। আগামী ২৭ তারিখ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে নৌকা ও কাউন্সিলর পদে আওয়ামী লীগের কাউন্সিলর প্রার্থীদের বিজয়ী করে বীর চট্টগ্রামের মানুষকে উন্নয়নের অগ্রযাত্রার মিছিলের অগ্রভাগে সামিল হতে হবে।

 

০৭ জানুয়ারী বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ৩৬ নং গোসাইলডাঙ্গা ওয়ার্ডের কাউন্সিলর পদপ্রার্থী জাহাঙ্গীর আলমের নিজ উদ্যাগে আয়োজিত শীববস্ত্র বিতরন ও আলোচনা সভায় রেজাউল করিম চৌধুরী আরো বলেন, যুব সমাজের জন্য নতুন কর্মসংস্থান সৃষ্টির পাশাপাশি বন্দরনগরীকে পর্যটনের অন্যতম কেন্দ্রবিন্দু হিসেবে পরিণত করার ব্যাপারে যথাযত পরিকল্পনা ও আন্তরিকতা ব্যক্ত করেন।

 

আওয়ামী লীগ নেতা বাবুল নন্দীর সভাপতিত্বে ও নগর ছাত্রলীগ নেতা অমিত পালিত অংকুরের পরিচালনায় সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ৩৬নং গোসাইলডাঙ্গা নিমতলা ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী হাজী জাহাঙ্গীর আলম চৌধুরী, গোসাইলডাঙ্গা সার্বজনীন শ্রী শ্রী দুর্গা মন্দির কমপ্লেক্স পরিচালনা পরিষদের সভাপতি নিধু পালিত। 

 

প্রধান বক্তা ছিলেন বেসরকারী কারা পরিদর্শক আজিজুর রহমান আজিজ, বিশেষ বক্তা ছিলেন নগর ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি রুমেল বড়ুয়া রাহুল। 

 

বক্তব্য রাখেন হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ বন্দর শাখার সহ-সভাপতি ডাঃ এস.কে.দেব সজল, সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদপ্রার্থী জিন্নাত আরা লিপি, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি রেজাউল হক রুবেল, গোসাইলডাঙ্গা লোকনাথ ধামের সভাপতি প্রদীপ চৌধুরী, ছাত্রলীগ নেতা অভিজিৎ দেব, সত্যজিৎ দাশ রাসেল, সত্যজিৎ ঘোষ মিঠু, প্রিতম পার্থ, অভি নাগ, গোসাইলডাঙ্গা তরুণ সংঘের সাধারণ সম্পাদক বিশ্বজিৎ রঞ্জন খেলু, ইসলামীয়া কলেজ ছাত্রলীগ নেতা আল-আমিন হোসাইন, যুবলীগ নেতা রেজাউল করিম বাবলু, নাজমুল হাসান, আবুল কালাম আজাদ, মীর মোঃ ইমতিয়াজ, নোভেল হক, এস.কে আরমান, স্বপন ঘোষ, লোকনাথ ধামের রঞ্জিত মল্লিক ও অরুণ কান্তি চৌধুরী প্রমুখ।

চট্টগ্রাম


শেয়ার