ইভটিজিং করতে গিয়ে ম্যাজিস্ট্রেটের হাতে ধরা অত:পর ইভটিজার কারাগারে





শেয়ার

চট্টগ্রাম: ইভটিজিং একটি সামাজিক ব্যাধি। আর ইভটিজারদের উৎপাতে অফিসগামী মহিলা থেকে শুরু করে স্কুল কলেজগামী ছাত্রীরা বিব্রতকর অবস্থায় পড়েন এবং নানাভাবে হয়রানির শিকার হতে হয়। তেমনি একটি ঘটনা ঘটে খুলশী থানার ডেভার পাড়, কুসুমবাগ আবাসিক এলাকায়। জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ওমর ফারুক ছদ্মবেশে হাতে নাতে এক ইভটিজারকে ধরলেন এবং শাস্তিস্বরুপ দিলেন ১৫ দিনের কারাদণ্ড।

আজ শনিবার ২৬ ডিসেম্বর শনিবার দুপুরে জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট উমর ফারুকের নেতৃত্বে খুলসী থানার  ডেভার পাড়ের কুসুমবাগ এলাকায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হয়। 

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট উমর ফারুক বলেন, ছদ্মবেশে খুলশী থানার ডেভার পাড়, কুসুমবাগ আবাসিক এলাকায় প্রায় এক ঘন্টা পর্যবেক্ষণ করে ইভটিজারকে ইভটিজিং করা অবস্থায় মোঃ রাসেল নামের এক বখাটেকে ধরা হয় এবং ১৫ দিনের কারাদণ্ড দেয়া হয়।স্থানীয় একটি দর্জির দোকানে কাজ করে রাসেল।

তিনি আরও বলেন, সরেজমিনে দেখা  ও তথ্যানুযায়ী ইভ টিজার ভিকটিমকে তার কর্মক্ষেত্রে যাওয়া আসার সময় প্রতিনিয়ত কয়েকজনকে সাথে নিয়ে ইভটিজিং করে আসছিল। তারই ফলশ্রুতিতে আজ সাধারণ পাবলিক সেজে কাছাকাছি থেকে পর্যবেক্ষণ করি এবং ইভটিজারকে ইভটিজিং করা অবস্থায় হাতেনাতে ধরি এবং তাকে শাস্তির আওতায় আনা হয়। পাশাপাশি এলাকার সকল পেশার মানুষকে ইভটিজিংয়ের বিরুদ্ধে সচেতনতা সৃষ্টির লক্ষে কাজ করতে অনুরোধ জানানো হয় যাতে সমাজ থেকে এ ব্যাধি দূর হয়।      

 

চট্টগ্রাম


শেয়ার