নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে উদযাপন হলো মহান বিজয় দিবস উদযাপন





শেয়ার

চট্টগ্রাম : আজ ১৬ ডিসেম্বর-মহান বিজয় দিবস ।  বিজয়ের ৪৯তম বার্ষিকী। বাঙালি জাতির হাজার বছরের শৌর্যবীর্য এবং বীরত্বের এক অবিস্মরণীয় দিন। ১৯৭১ সালের এ দিনে ঢাকার রেসকোর্স ময়দানে (বর্তমান সোহরাওয়ার্দী উদ্যান) পাকিস্তানী বাহিনীর বিপুল সংখ্যক সেনাসদস্য বাংলাদেশ ও ভারতের সমন্বয়ে গঠিত যৌথবাহিনীর কাছে আনুষ্ঠানিকভাবে আত্মসমর্পণ করে। ফলে পৃথিবীর বুকে বাংলাদেশ নামের একটি স্বাধীন ও সার্বভৌম দেশের অভ্যুদয় ঘটে। এ মহতী অর্জনে রয়েছে ৩০ লাখ শহিদের আত্মদান আর ২ লাখ মা-বোনের সম্ভ্রম।

 

এ উপলক্ষে জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তানদের স্মরণে চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারে পুষ্পমাল্য অর্পণ করেছে সর্বস্তরের জনসাধারণ। 

আজ সকাল ৮ টায় শহিদ মিনারে পুস্পার্ঘ অর্পণ করে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের (চসিক ) প্রশাসক খোরশেদ আলম সুজন, বিভাগীয় কমিশনার এবিএম আজাদ, জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ ইলিয়াস হোসেন, রেঞ্জ ডিআইজি আনোয়ার হোসেন, সিএমপি কমিশনার সালেহ মোহাম্মদ তানভীর, জেলা পুলিশ সুপার এস এম রশিদুল হক ও মহানগর মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মোজাফফর আহমদ।  এ সময় বিভিন্ন রাজনৈতিক দল, সামাজিক ও স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন, সাংস্কৃতিক সংগঠন, এনজিওসহ আপামর জনসাধারণ শহিদদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা জানায়।

 

বিজয় দিবসের অনুষ্ঠানমালার অংশ হিসেবে আজ সূর্যোদয়ের সাথে সাথে নগরীর কোর্ট হিলে ৩১ বার তোপধ্বনি দেওয়া হয়েছে। সকল সরকারি বেসরকারি ও আধাসরকারি ভবনে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়েছে। 

 

মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে চট্টগ্রাম সার্কিট হাউজ প্রাঙ্গণে আনুষ্ঠানিকভাবে জাতীয় পতাকা উত্তোলন ও সালাম গ্রহণ করছেন বিভাগীয় কমিশনার এবিএম আজাদ । এসময় জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ ইলিয়াস হোসেন, রেঞ্জ ডিআইজি আনোয়ার হোসেন, সিএমপি কমিশনার সালেহ মোহাম্মদ তানভীর ও জেলা পুলিশ সুপার এস এম রশিদুল হক উপস্থিত ছিলেন। 

 

মহান বিজয় দিবসের কর্মসূচির অংশ হিসেবে জেলা শিল্পকলা ও শিশু একাডেমিতে অনলাইনে শিশুদের মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক চিত্রাংকন প্রতিযোগিতার আয়োজন ও পুরস্কার বিতরণ করা হয়েছে। 

 

দিবসের অন্যান্য কর্মসূচির মধ্যে ছিল জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান ও বীর মুক্তিযোদ্ধাদের স্মরণে মসজিদ, মন্দির, গীর্জা ও প্যাগোডাসহ বিভিন্ন ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে দোয়া-মোনাজাত ও প্রার্থনা। দুপুরে নগরীর হাসপাতাল, জেলখানা, শিশু পরিবার, ভবঘুরে কেন্দ্র ও বৃদ্ধাশ্রমে উন্নতমাণের খাবার পরিবেশন করা হয়।

 

সন্ধ্যায় অনলাইনে জুম মিটিং অ্যাপের মাধ্যমে ‘জাতির পিতার স্বপ্নের সোনার বাংলা বিনির্মাণে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ধারণ ও ডিজিটাল প্রযুক্তির সর্বোত্তম ব্যবহারের মাধ্যমে জাতীয় সমৃদ্ধি’ শীর্ষক আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়।

 

এছাড়াও দিনব্যাপী স্থানীয় বিভিন্ন চ্যানেলে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক চলচ্চিত্র ও ডকুমেন্টরি প্রদর্শণ করা হয়।

 

নগরীর জিইসি মোড়স্থ প্রিমিয়ার ইউনিভার্সিটির কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারে মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে ইউনিভার্সিটির পক্ষ থেকে পুষ্পমাল্য অর্পণ করে  শহিদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানান একুশে পদক প্রাপ্ত সমাজ বিজ্ঞানী শিক্ষাবিদ ও প্রিমিয়ার ইউনিভার্সিটির উপাচার্য প্রফেসর ড. অনুপম সেন। পরে ইউনিভার্সিটির শিক্ষক-শিক্ষিকা ও কর্মকর্তা-কর্মচারিরা পুষ্পমাল্য অর্পণ করেন।

 

চট্টগ্রাম


শেয়ার