অনুমোদন ছাড়া চলছে ক্লিনিক ডায়াগনস্টিক সেন্টার,ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানে সীলগালা





শেয়ার

চট্টগ্রাম : নেই কোনো ডাক্তার, নার্স, মেডিকেল এসিস্ট্যান্ট কিংবা টেকনিশিয়ান। নেই স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অনুমোদন। 

 

চট্টগ্রাম জেলার আনোয়ারা উপজেলার বটতলীর জনসেবা ডায়াগনস্টিক সেন্টার ও কালিবাড়ির আইডিয়াল ক্লিনিকে এসব দৃশ্য ধরা পরে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানে। এছাড়া অভিযান পরিচালনাকালে আরো দেখা যায় স্বাস্থ্য সেবা প্রদানের ন্যূনতম পরিবেশ নেই কিন্তু প্রতিষ্টানগুলো হরহামেশাই চালিয়ে যাচ্ছে স্বাস্থ্য সেবা। আর এসব অপরাধে সীলগালা করে দেয়া হয়েছে বটতলীর জনসেবা ডায়াগনস্টিক সেন্টার এবং কালিবাড়ির আইডিয়াল ক্লিনিক। 

 

গত মঙ্গলবার ১৭ নভেম্বর ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনার সময় উপস্থিত ছিলেন আনোয়ারা উপজেলার নির্বাহী অফিসার শেখ জুবায়ের আহমেদ, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আবু জাহিদ মোহাম্মদ সাইফুদ্দিনসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা। 

 

অভিযানের বিষয়ে জানতে চাইলে আনোয়ারা উপজেলা নির্বাহী অফিসার শেখ জুবায়ের আহমেদ বলেন, যেহেতু স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অনুমোদন নেই, পাশাপাশি ডাক্তার নার্স মেডিকেল এসিসট্যান্ট বা টেকনেশিয়ান কাউকেই পাওয়া যায়নি তাই প্রতিষ্টানগুলোকে সিলগালা করা হয়েছে। 

 

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, অনেকেই অন্তরালে অনুমোদন না নিয়ে প্রতিষ্টান পরিচালনা করছেন, আমরা খবর পাওয়া মাএ অভিযান পরিচালনা করে এসব প্রতিষ্টান বন্ধ করে দিচ্ছি, পর্যায়ক্রমে আমরা অভিযান পরিচালনা করে দেখব, এবিষয়ে কি করা যায়। তাছাড়া এধরণের অভিযান চলতে থাকবে বলেও জানান শেখ জুবায়ের আহমেদ।

 

চট্টগ্রাম


শেয়ার