দোকানে বসেই ট্রেড লাইসেন্স!





শেয়ার

চট্টগ্রাম:  এযেন না চাইতেই আকাশের চাঁদ হাতে পাওয়া- এমনই এক দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন হাটহাজারী উপজেলা নির্বাহী অফিসার।দোকানে বসেই ব্যবসা করার ট্রেড লাইসেন্স পাচ্ছেন ব্যবসায়ীরা।তাছাড়া অনেক ব্যবসায়ী তাদের প্রতিনিয়ত বিভিন্ন ঝামেলার কারণে ট্রেড লাইসেন্স নতুন করে নবায়ন করেন না।তারাই এখন তাদের নিজ দোকানে বসে ট্রেড লাইসেন্স নবায়ন করছেন।স্বস্তির নি:শ্বাস ফেলছেন ব্যবসায়ীরা পাশাপাশি খুব আনন্দও দেখা গেছে তাদের মাঝে।

 

হাটহাজারী উপজেলা প্রশাসন কর্তৃক গৃহীত " service at doorstep through mobile court" কর্মসূচীর আওতায় আজ উপজেলার গড়দুয়ারা ইউনিয়নের লোহারপুল বাজারের ৬৪ জন ব্যবসায়ী নিজের দোকানে বসেই পেয়েছেন ট্রেড লাইসেন্স। এর জন্য সময় আর অর্থ খরচ করে ইউনিয়ন পরিষদে যেতে হয়নি,ইউনিয়ন পরিষদের সেবাই চলে এসেছে তাদের কাছে। জানা গেছে, দুই দিনে ১১০ জন ব্যবসায়ী নিজ দোকানে বসেই পেয়েছেন ট্রেড লাইসেন্স। 

 

এবিষয়ে হাটহাজারী উপজেলা নির্বাহী অফিসার রুহুল আমিন জানান,ইউনিয়ন পরিষদের আওতায় যারা ব্যবসা করেন তাদের কেউ কেউ ট্রেড লাইসেন্স নিতে চান,আবার নিতে চান না,নিলেও অনেকে নবায়ন করেন না তাদের ব্যক্তিগত ও পারিপার্শ্বিক বিভিন্ন ঝামেলার কারণে। অনাগ্রহীও হয়ে থাকেন অনেকে।কিন্তু ব্যবসা করতে ট্রেড লাইসেন্স খুবই গুরুত্বপূর্ণ আইন অনুযায়ী।আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি,এক একটা করে বাজার পরিদর্শন করব,প্রয়োজনে মোবাইল কোর্ট যাবে। এখানে যে বিষয়টা হবে,ট্রেড লাইসেন্সের জন্য আমরা কাউকে জরিমানা করব না। যাদের ট্রেড লাইসেন্স নাই,ঐদিনেই তাদের তথ্য সংগ্রহ করে তাদের দোকানেই আমরা ট্রেড লাইসেন্স দিয়ে দিব। আজ প্রায় একশ জনের উপর ব্যবসায়ী দোকানে বসেই তাদের ট্রেড লাইসেন্স হাতে পেয়েছে এবং তারাও এব্যাপারে খুব খুশী।

এছাড়াও উপজেলা প্রশাসনের এউদ্যোগকে সহযোগিতা করার জন্য গড়দুয়ারা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান, সচিব এবং গ্রাম পুলিশদের তিনি ধন্যবাদ জানিয়েছেন।

 

চট্টগ্রাম


শেয়ার