ধর্ষণ ও নারী নির্যাতনের প্রতিবাদে মানববন্ধন





শেয়ার

নিজস্ব প্রতিবেদক : দেশব্যাপী চলমান ধর্ষণ, নারী নির্যাতনের প্রতিবাদ ও ধর্ষকদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবীতে বিক্ষোভ কর্মসূচী ও প্রতিবাদী মানববন্ধনের আয়োজন করেছে সামাজিক ও স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন সমূহ্যের ঐক্যবদ্ধ প্ল্যাটফর্ম "সম্মিলিত সামাজিক সংগঠন পরিষদ।" 

গতকাল শুক্রবার নগরীর চেরাগী চত্বরে বিকাল ৩ টায় অনুষ্ঠিত এই মাববন্ধনে সংহতি প্রকাশ করেন বিভিন্ন সামাজিক, স্বেচ্ছাসেবী ও মানবিক সংগঠন। 

সম্মিলিত সামাজিক সংগঠন পরিষদের সভাপতি লায়ন ওসমান হিমাদ্রীর সভাপতিত্বে ও সাবেক সভাপতি মোহাম্মদ এহসানের পরিচালনায় উক্ত মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, চ বি অধ্যাপক ড. জিনবেধি ভিক্ষু, পরিষদের সাধারণ সম্পাদক শরীফুল ইসলাম শরীফ, সাংগঠনিক সম্পাদক মেহবুব আলী, সাবেক সহ সভাপতি ও আলো দেখাবোই এর প্রতিষ্ঠাতা এম এইচ স্বপন, সাবেক সদস্য সচিব খন্দকার হালিম, সাবেক সহ সভাপতি বায়েজিদ সুমন, সাবেক সাধারণ সম্পাদক শামসুজ্জোহা পলাশ, অর্থ সম্পাদক মঈন উদ্দীন আহমেদ, দপ্তর সম্পাদক এম এ জলিল। সমাপনী বক্তব্য রাখেন, সহ সভাপতি ও ক্ষুদ্র স্বপ্ন ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান লায়ন নবাব হোসেন মুন্না। 

এছাড়া ও সংহতি জানিয়ে বক্তব্য রাখেন, প্রবাহ সামাজিক সংগঠনের সভাপতি ও মানবাধিকার নেতা জাহাঙ্গীর আলম, প্রতিজ্ঞা সংঘের সভাপতি লায়ন ইব্রাহিম, সার্ক মানবাধিকার কমিশনের আবদুল আজিজ, উৎসাহ সামাজিক সংগঠনের মোহাম্মদ ইস্রাফিল, স্বপ্ন ও আগামীর আলাউদ্দিন আদি, আলোকবর্তিকার এড ফেরদৌস সেলিম, অভিযাত্রিকের আরাফাত মুহিব, চিটাগং বয়েজের মোঃ সোহেল, কল্যাণের আরিফ উদ্দিন, সমাধান ফাউন্ডেশনের কামরুল হাসান, প্রিয় চট্টগ্রামের মাহমুদুল হাসান, ঐকতানের সাব্বির আহমেদ, প্রচেষ্টা ফাউন্ডেশন বাংলাদেশের আফিয়া রওনাক, জাগো নারীর সুরভী আফরিন নিশীতা, নগরফুলের রাশেদুল হক নিশান, আলোকিত সংঘের আবদুল লতিফ, কান্ডারীর ফখরুল সাজ্জাদ, টেরী বাজার ব্ল্যাড ব্যাংকের আবু বকর হারুন, ঝঝঈ-ঐঝঈ ১২/১৪ ব্যাচের মিনহাজ, আলোর আশা যুব ফাউন্ডেশনের আনোয়ার এলাহী ফয়সাল, প্রিয় বাংলাদেশের লায়ন শাহজাহান,  সংগঠক নাজিম উদ্দিন এনেল,  মানবাধিকার কর্মী আসাদুজ্জামান খান আসাদ সহ প্রমুখ।

মানবন্ধনে বক্তরা বলেন, আইনের সুষ্ঠ প্রয়োগ ও অপরাধের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি ধর্ষণ কমাতে কার্যকর ভূমিকা রাখবে।  সম্প্রতির নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ সহ দেশের   বিভিন্ন স্থানে সংগঠিত ধর্ষণের দ্রুত আইনে বিচারের দাবী সহ দোষীদের সর্বোচ্চ শাস্তি ফাঁসির দাবী জানানো হয়।

 

চট্টগ্রাম


শেয়ার