ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট নিয়ে শঙ্কায় জার্মান প্রবাসীরা





শেয়ার

জার্মানিতে পরিকল্পিত টিকাদান কর্মসূচি এবং নমুনা পরীক্ষা সহজলভ্য হওয়ায় দেশটিতে করোনা সংক্রমণ এখন অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে। তারপরও ভারতীয় ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট নিয়ে শঙ্কা কাটছে না স্থানীয় ও প্রবাসীদের।

 

জার্মানিতে পুরোদমে চলছে করোনার ভ্যাকসিন কার্যক্রম। সরকারি ও বেসরকারি উদ্যোগ ছাড়াও দেশটির সাধারণ চিকিৎসকদের চেম্বারে টিকাদান কর্মসূচিতে গতি আসায় ভাইরাস এখনটাই নিয়ন্ত্রণে। এ ছাড়া জার্মানির পথেঘাটে, বাজারে চোখে পড়বে করোনা পরীক্ষার অস্থায়ী কেন্দ্র। যেখানে মাত্র ১৫ মিনিটেই জানা যায় শরীরে ভাইরাসটির অস্তিত্ব আছে কি না।      কোভিডকে রুখতে দেশটির স্বাস্থ্য খাতের এমন উদ্যাগে খুশি স্থানীয়রা। তারা বলেন, আমাদের করোনা নিয়ন্ত্রণে আনার ক্ষেত্রে সরকারের সব সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানাই।  টিকা নেওয়া মানুষের সংখ্যা এখন কিন্তু বাড়ছে এবং দেশজুড়ে করোনা পরীক্ষার উপকরণ এখন অনেকটাই সহজলভ্য। কবে ভাইরাস চলে যাবে জানি না, তবে নানামুখী উদ্যোগে এখন কিছুটা হলেও স্বস্তিতে আছি।      অন্যদিকে ব্রাজিল, ব্রিটেন কিংবা দক্ষিণ আফ্রিকার করোনার চেয়ে ভয়ংকর হয়ে ওঠা করোনার ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট নিয়ে স্থানীয়দের পাশাপাশি শঙ্কিত দেশটিতে বসবাসরত প্রবাসীরাও। তারা বলেন, ভারতের ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট জার্মানিতে চলে এসেছে। এর মধ্যে কয়েকটি স্কুলে এই ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টের সংক্রমণ দেখা দিয়েছে। এতে আমরা অভিভাবকরা শঙ্কিত।      করোনা পরিস্থিতি আরও ভালো হলে বিধিনিয়মে আরো শিথিল করার পরিকল্পনা করছে মার্কেল সরকার। এরই ধারাবাহিকতায় দুই ডোজ টিকা নেওয়াদের ক্ষেত্রে মাস্ক পরার বিধিনিষেধ তুলে নেওয়ার বিষয়টিও মাথায় রেখেছে দেশটির স্বাস্থ্য বিভাগ।

আন্তর্জাতিক


শেয়ার